শুক্রবার , মে ২৪ ২০১৯

কুষ্টিয়ায় তিন দিনব্যাপী লালন স্মরণোৎসব উদ্বোধন


মনের গরল যাবে যখন, সুধাময় সব দেখবি তখন বাউল সম্রাট লালন ফকিরের এই তৃষ্ণার্ত বাণীর স্লোগানে কুষ্টিয়ার ছেঁউড়িয়ার লালন আখড়াবাড়িতে তিন দিনব্যাপী লালন স্মরণোৎসবের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছে।

বুধবার দিনগত রাত ৮টায় প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-এলাহী এ স্মরণোৎসবের উদ্বোধন করেন।

এ সময় লালন একাডেমির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক মো. আসলাম হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ।

প্রধান আলোচক ছিলেন কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. হারুন-অর রশিদ আসকারী। আলোচনা শেষে মূল মঞ্চে একাডেমির শিল্পীরা লালন ফকিরের আধ্যাত্মিক গান পরিবেশন করেন।

বাউল সম্রাট লালন সাঁই তার জীবদ্দশায় ছেঁউড়িয়ার এই আখড়াবাড়িতে প্রতি বছর চৈত্রের দোলপূর্ণিমা রাতে বাউলদের নিয়ে সাধুসঙ্গ করতেন। ১২৯৭ বঙ্গাব্দের পহেলা কার্তিক তার মৃত্যুর পরও এ উৎসব চালিয়ে আসছে তার অনুসারীরা।

এবারও সাংস্কৃতিক মন্ত্রণালয় ও জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় লালন একাডেমি এ লালন স্মরণোৎসবের আয়োজন করেছে। লালন উৎসব শেষ হবে আগামী ২২ মার্চ রাতে।

শেয়ার