ব্রেকিং নিউজঃ
ঘরে ঘরে একটি সুশিক্ষিত সন্তান পারে একটি উন্নত সম্মৃদ্ধিশালী দেশ গড়তে-শেখ আফিল উদ্দিন এমপি ভাষা শহীদদের প্রতি তালা প্রেসক্লাবের শ্রদ্ধা সাতক্ষীরা কিন্ডার গার্টেনের উদ্যোগে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উৎযাপন তালায় বিনম্র শ্রদ্ধায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত অমর একুশে আজ একুশের গৌরবময় ইতিহাস সব প্রজন্মকে জানতে হবে : প্রধানমন্ত্রী সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে কবিতা, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, আলোচনা সভা ও পুস্পমাল্য অর্পন সড়ক দূর্ঘটনা রোধে তালায় শ্রীমন্তকাটি ছাত্র কল্যান পরিষদের উদ্যোগে স্মারক লিপি প্রদান ও পথসভা পাটকেলঘাটায় নেই কোন গণশৌচাগার ! সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

চির বিদায়ের সময় মায়ের স্পর্শ পেলনা শিশু অরিত্র!

গাজী জাহিদুর রহমান:

  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ২৫ অক্টোবর ২০১৯, ২০:৩৯
  • ১৯৩০

চির বিদায়ের সময় মায়ের স্পর্শ পেলনা ছোট্ট শিশু অরিত্র জ্যোতি বিশ্বাস। বয়স ১১ বছর ০২ মাস। তালা শিশুতীর্থ স্কুলের ৪র্থ শ্রেণির ছাত্র এবং তালা গণ-সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের সংগীত বিভাগরে ছাত্র ছিল অরিত্র। বাবা নন্দ গোপাল বিশ্বাস আশা এনজিও’র তালা শাখার ম্যানেজার। অরিত্র’র মায়ের কোল জুড়ে প্রায় তিনমাস আগে আসে ফুটফটে এক কন্যা সন্তান। তাকে কোলে নিয়ে আদর করে বাড়ি থেকে বাবার সাথে ডাক্তার দেখানোর জন্য বের ভারতের উদ্দেশ্যে বের হয় অরিত্র। ইচ্ছে ছিল ফিরে এসেই পূজোর আনন্দ ভাগাভাগি করবে সবার সাথে। কিন্তু বিধি বাম!
বাবার সঙ্গে প্রথমে গিয়েছিল ভারতের বাঙ্গালুরের দেবী শেঠীর নারায়ণী হাসপাতালে, পরে সেখান থেকে মনিপাল হাসপাতালে। সেখান গিয়েই ধরা পড়ে হার্টের সমস্যা। ডাক্তারের পরামর্শে করতে হয় দ্রুত অপারেশন। ১২ দিন নিরিড় পর্যবেক্ষনে (আইসিইউতে) থাকার পর তার নতুন করে ফুসফুসে ইনফেকশান ধরা পড়ে। সেখানে কয়েক দফা অপারেশনরে পরও আর সুস্থ হয়নি অরিত্র। এক পর্যায়ে ডাক্তারদের সকল চেষ্টা ব্যর্থ করে দীর্ঘ ২৮ দিন আইসিইউতে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ার পর ২২ অক্টোবর (মঙ্গলবার) রাত ১২ টা ৪০ মিনিটের দিকে না ফেরার দেশে চলে যায় অরিত্র।
শুক্রবার বেলা ২ টার দিকে বাঙ্গালোর থেকে তাল লাশ পৌঁছায় গ্রামের বাড়ি সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার শোভনালী ইউনিয়নের বৈকারঝুটি গ্রামে। সেখানে অরিত্রর মরদেহ পৌঁছালে এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়। মা-বাবা-কাকা-কাকি-পিসি-ঠাকুরমাসহ হাজারো মানুষের আর্তনাদে এলাকার আকাশ বাতাস ভারী হয়ে ওঠে। এ সময় সেখানে এক আবগেঘন পরিবেশেরে সৃষ্টি হয়। বিকালে সকল ধরনের ধর্মীয় কার্যাদি সম্পন্ন করে স্থানীয় শ্মাশানের পাশে তাকে সমাহিত করা হয়।

আরও পড়ুন-  কলারোয়ায় কয়লা ইউনিয়ন লিগ্যাল এইড কমিটির ওরিয়েন্টশন অনুষ্ঠিত

এদিকে অরিত্র অপারেশনের আগে মোবাইল ফোনে তার পুলিশ অফিসার কাকার সাথে ভিডিও কলে বলেছিল, “কাকু আমি ভাল হয়ে দুর্গাপূজার আগেই চলে আসব। সে বলেছিল, ইন্ডিয়ায় অনেক সুন্দর সুন্দর বাজি পাওয়া যায়, আমি ফেরার সময় বাজি কিনে নিয়ে এসে আনন্দ করবো!” দীর্ঘ প্রায় এক মাস পর সে ফিরল, কিন্তু লাশ হয়ে। চির প্রস্থানের সময় বাবাকে ক্ষণিকের জন্য কাছে পেলেও পায়নি মায়ের র্স্পশ।
এদিকে তার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনায় তালা শিশুতীর্থ স্কুলের পক্ষ থেকে শোক কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে। এছাড়া তালা গণ-সাংস্কৃতকি কেন্দ্র অরত্রি জ্যোতি বিশ্বাসের আত্মার শান্তি কামনায় শুক্রবার (২৫ অক্টোবর) এর সকল ক্লাস বন্ধ ঘোষণা করে।
‘প্রিয় অরিত্র। তুমি পরিবারের তারকা হয়ে বেঁচে থাকবে চিরদিন। তোমাকে খুব মিস করবে সবাই, তবে সব সময়ই তোমাকে মনে রাখবে স্বজনসহ সকলেই!’ ওপারে ভাল থেকো বাবা!!

আরও পড়ুন-  কলারোয়া থানায় ৪৮ বোতল ফেনসিডিল, ৫০ বোতল ভারতীয় মদসহ ০৩জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার
Loading...

অন্যকে জানাতে শেয়ার করুন

আরও পড়ুন

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
Loading...